Hello Testing Bangla Kobita

প্রতি মাসে দ্বিতীয় রবিবার

Advertisement

2nd Year | 4th Issue

বুধবার, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | Wednesday, 6th October, 2021

শারদ অর্ঘ্য ১৪২৮ ।  কবিতা

অ য় ন   ব ন্দ্যো পা ধ্যা য়

মুক্তমনার কবিতা

ছুৎমার্গ ভাগাড়ে যাক—যা-ইচ্ছে-করবই, আমি কবি

নেকুপুষুমুনু-হয়ে ছোঁয়া যায় না দুর্লভ প্রতিভা

মাপতে-গিয়ে থই-হারিয়ে নাকে ও চোখের জলে হবি

অন্ধ-ই হাতড়ায়—তার দুপুরও কী, মাঝরাত কী বা

 

হাঁটুরই-বয়েসী-ধরে—বেঁচে-মরে, দ্বাররুদ্ধ শোবো—

কালই অন্য, পরশু অন্য, হর্ষে বন্য ধন্য-হয়ে নামি

তরশু যে দু’জনকে-নিয়ে, একইসঙ্গে, পাপপুণ্য ধোবো

দেবতা সন্তুষ্ট হবেন। দেওয়া চাই উৎকৃষ্ট প্রণামী।

 

সৃজনের-নুড়ো জ্বেলে-দেব ওঁচাবোঁচাখোঁচা-মুখে…

মহতী-সৃষ্টিধারায় পার-হবে নদীবক্ষে খেয়া

স্ত্রী-কন্যা সুন্দর গৃহে—বাইরে ‘হ্যাপি’ আনন্দমুলুকে…

কাম শ্রেষ্ঠ, খাম শ্রেষ্ঠ, জয়তু গোপনে দেয়ানেয়া

 

‘জিনিয়াস’ হয়েছ, আর ‘কোকশাস্ত্রের’ ফান্ডাটি থাকবে না!

পরকীয়াটিয়া ছাড়ো। সকলেই আপন ও আমার-ই—

প্রকৃতির কোনও জীব নহে কোনও সঙ্গিনীর কেনা

কেচ্ছা তো কবির ধর্ম। রাতের কল্লোল স্বেচ্ছাচারী।

 

তা বলে ‘ভাইরাল’ করবি! ঠিক হ্যায় আমিও নেব দেখে—

ফেসবুকীয়-পঞ্চায়েতে আমার ‘ছেঁড়া’টি আসে-যায়!

আজ ‘খিস্তি’, কাল ‘কিস্তি’— মাৎ-হয়ে দলে এলি কে কে?

 

আমাকে দাঁড়াতে হবে বাঁশি-হাতে কলির-সন্ধ্যায়

 

সিচুয়েশন

 ‘আলো ক্রমে আসিতেছে…’। চতুর্দিক থমথমে, সন্নাটা…

কবিতা-লেখার-পূর্বে যেইরূপ স্থিত-হন কবি

বাতাসও তেমনই; হয়ত একটু পরেই ধুলোপায়ে হাঁটা-

লাগাবে; উড়ো-পাতারা এলোমেলো করে দেবে সব-ই;

 

নিজেকে দু’টুকরো করব! ভাঙব! কুচিকুচি-করব ছিঁড়ে!

গুছি গুছি কেশরাশি মিশে-যাবে হাওয়াকুয়াশায়…

হাহাকার বাজছে জনপদে, স্টোরে, স্টেশনের ভিড়ে…

ঘটনাহীনের মতো সময়ও চলেছে ঘটনায়

 

রোজ-রোজ উঞ্ছবৃত্তি। পিন-নম্বর-হাতানো চাতুরী…

নীলছবি-পরিচালনা… অঙ্গ-কেটে বিক্‌কিরি-বাজার…

গল্পগুচ্ছ এরকমই অসমাপ্ত, অপূর্ণ, অধুরি…

কোণঠাসা ‘পরিযায়ী’ও—ঘর নেই, কাজও নেই আর

 

শুনেছি ‘মন কি বাত’। তৃতীয়-ঢেউয়ের হাতছানি…

আলো কমে আসিতেছে। ক্রমশ শুকিয়ে-আসছে পানি।

আরও পড়ুন...